ছেলে ধরা ‘গুজবে’ বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবককে গণপিটুনি!

post-title

ছবি সংগৃহীত

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছেলে ধরার গুজব ছড়িয়েছে। এই গুজব আতঙ্কে গোলাপগঞ্জে ছেলে ধরা সন্দেহে আব্দুল মজিদ (২৫) নামের এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় জনতা।

রোববার বিকেলে উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের পশ্চিম ভাগ গ্রামে এই ঘটনটি ঘটেছে। বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী ওই যুবক জকিগঞ্জ উপজেলার বিরশ্রী গ্রামের ইউছুফ আলীর ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার বিকেলে ভাদেশ্বর ইউনিয়নের পশ্চিমভাগ এলাকায় ওই বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবক ঘুরাঘুরি করছিল। এসময় এক শিশু ছেলে ধরা বলে চিৎকার দেয়। এতে আশপাশের লোকজন তাকে গণপিটুনি দিয়ে ভাদেশ্বর ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এরপর গোলাপগঞ্জ থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ তাকে থানা হেফাজতে নিয়ে যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মাছুদুল আমিন বলেন, ‘‘সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া গুজবে আতঙ্কিত হয়েই সন্দেহে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবককে স্থানীয়রা গণপিটুনি দিয়েছে। তাৎক্ষণিক জনপ্রতিনিধি ও কিছু লোক তাকে রক্ষা করে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করেছে।

‘‘না হলে যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যেত। আমরা বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী আব্দুল মজিদকে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছি।’’ ওসি গোলাপগঞ্জবাসীকে গুজবে কান না দেওয়ারও আহ্বান জানান।

এসএ/সিলেট