মৌরিতানিয়ায় অভিবাসীবাহী নৌকা ডুবে ৮৯ জনের মৃত্যু

post-title

আফ্রিকার দেশ মৌরিতানিয়ার উপকূলে অভিবাসীবাহী নৌকা ডুবে অন্তত ৮৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত সোমবার এই হতাহতের ঘটনা ঘটলেও বৃহস্পতিবার দেশটির সরকারি বার্তাসংস্থা এ তথ্য জানিয়েছে।

বার্তাসংস্থাটি জানিয়েছে, মৌরিতানিয়ার কোস্টগার্ড মরদেহগুলো উদ্ধার করেছে। এই অভিবাসন প্রত্যাশীরা একটি বড় মাছ ধরার নৌকায় করে যাচ্ছিলেন। ওই সময় এটি ডুবে যায়। নৌকা ডুবির পর নয়জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। যার মধ্যে পাঁচ বছর বয়সী একটি শিশুও রয়েছে।

নৌকাটি মৌরিতানিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর এনদিয়াগো থেকে চার কিলোমিটার দূরে আটলান্টিক মহাসাগরে ডুবে যায়।

অভিবাসন প্রত্যাশীদের নিয়ে ছয়দিন আগে এটি গাম্বিয়া-সেনেগাল সীমান্ত থেকে ছেড়ে আসে। নৌকাটির গন্তব্য ছিল ইউরোপ। আর এতে সব মিলিয়ে ১৭০ জন মানুষ ছিলেন।

পশ্চিম আফ্রিকার হাজার হাজার মানুষ প্রতি বছর আটলান্টিক মহাসাগর এবং ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে পৌঁছানোর চেষ্টা করেন। তাদের আশা, ইউরোপে গেলে উন্নত জীবন ও ভালো কাজ মিলবে। তবে উন্নত জীবনের জন্য বিপজ্জনক নৌপথে ইউরোপে আসতে গিয়ে অনেকের সাগরেই সলিল সমাধি হয়।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার ২০২৪ সালের তথ্য অনুযায়ী, ইউরোপে যেতে অভিবাসন প্রত্যাশীরা যেসব রুট ব্যবহার করেন তার মধ্যে আটলান্টিক মহাসাগরের রুটটি সবচেয়ে দীর্ঘ। এ কারণে বেশিরভাগ মানুষকে দীর্ঘ সময় নৌকায় অবস্থান করতে হয়। এছাড়া যদি কোনো দুর্ঘটনা ঘটে তাহলে সেখানে উদ্ধারকারীরাও তাৎক্ষণিকভাবে পৌঁছাতে পারেন না।

এসএ/সিলেট