ভারতের ওডিশার প্রথম মুসলিম নারী বিধায়ক সোফিয়া

post-title

ফাইল ছবি

সোফিয়া ফেরদৌস। ভারতের ওডিশা রাজ্যের ইতিহাসে নাম উঠে গেছে এই তরুণীর। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে রাজ্যের প্রথম নারী মুসলিম বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছেন সোফিয়া ফেরদৌস। আট হাজার ভোটের ব্যবধানে তিনি হারিয়েছেন বিজেপির প্রার্থী পূর্ণচন্দ্র মহাপাত্রকে। খবর এনডিটিভির।

রাজনৈতিক পরিবারেই জন্ম ৩২ বছর বয়সী সোফিয়ার। কংগ্রেসের বর্ষীয়ান নেতা মোহাম্মদ মকিমের মেয়ে তিনি। ‍দুর্নীতির মামলা মোহাম্মদ মকিমের প্রার্থিতা বাতিল হওয়ায় তার আসনেই প্রথমবারের মতো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন সোফিয়া। আর প্রথমবারেই বিধায়ক নির্বাচিত হয়ে গড়েছেন ইতিহাস।

কলিঙ্গ ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি থেকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক করার পর বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট থেকে এক্সিকিউটিভ জেনারেল ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রাম সম্পন্ন করেছেন তিনি।

২০২৩ সালে কনফেডারেশন্স অফ রিয়েল এস্টেট ডেভেলপার্স অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়ার (ক্রেডাই) ভুবনেশ্বর চ্যাপ্টারের সভাপতি নির্বাচিত হন সোফিয়া। ক্রেডাইয়ের নারী শাখার ইস্ট জোনের কোর্ডিনেটর হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি।

এছাড়া ইন্ডিয়ান গ্রিন বিল্ডিং কাউন্সিলের (সিআইআই) ভুবনেশ্বর চ্যাপ্টারের কো-চেয়ার এবং আইএনডব্লিউইসি’র কোর মেম্বার ছিলেন সোফিয়া। বিশিষ্ট শিল্পপতি শেখ মিরাজ উল হককে বিয়ে করেছেন তিনি।

ওডিশার প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী নন্দিনী শতপথীও এই আসন থেকেই ১৯৭২ সালে বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছিলেন।

এদিকে রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ১৪৭ আসন বিশিষ্ট ওডিশা বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করেছে বিজেপি। ফলে নতুন মুখ্যমন্ত্রী পেতে চলেছে ওডিশা।

এছাড়া রাজ্যের ২১টি লোকসভা আসনের মধ্যে বিজেপি ২০টি আসনে জয়লাভ করেছে। বাকি একটি আসন পেয়েছে কংগ্রেস। আর বর্তমান ক্ষমতাসীন দল নবীন পট্টনায়েকের বিজেডি কোনো আসনই পায়নি।

এসএ/সিলেট