উপজেলা নির্বাচন

জৈন্তায় লিয়াকত, গোয়াইনঘাটে স্বপন ও কোম্পানীগঞ্জে মজির বিজয়ী

post-title

ফাইল ছবি

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে সিলেট জেলার ৩টি উপজেলায়  মঙ্গলবার (২১ মে) ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে টানা ভোট গ্রহণ।

জৈন্তাপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত,  গোয়াইনঘাট উপজেলায় জেলা বিএনপির সদ্য বহিষ্কৃত নেতা (কোষাধ্যক্ষ) শাহ আলম স্বপন ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মো. মজির উদ্দিন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

জৈন্তাপুর : জৈন্তাপুর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত আলী আনারস প্রতীক নিয়ে ৩৭ হাজার ৫টি ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। তাঁর নিকতম প্রতিদ্বন্দ্বী কাপ পিরিচ প্রতীকের প্রবাসী আওয়ামী লীগের নেতা মোহাম্মদ আব্দুল গফফার চৌধুরী। তিনি ২৩ হাজার ৯শ ৫৬টি ভোট পেয়েছেন। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলায় ১৬ প্রার্থী অংশ নিয়েছেন। যেখানে চেয়ারম্যান পদে চেয়ারম্যান ৪ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন লড়ছেন।

জৈন্তাপুর উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লক্ষ ৩৪ হাজার ৬শ ১১ জন। যাদের মধ্যে ৬৪ হাজর ৬শ ৫৩ জন মহিলা ও ৬৯ হাজার ৯শ ৫৭ জন পুরুষ ভোটার। এ উপজেলায় তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন ১ জন। উপজেলায় ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৪৬টি।

গোয়াইনঘাট : গোয়াইনঘাট উপজেলায় বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ফারুক আহমদকে হারিয়ে বিজয়ী হয়েছেন জেলা বিএনপির সদ্য বহিষ্কৃত নেতা (কোষাধ্যক্ষ) ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী শাহ আলম স্বপন। জানা গেছে, গোয়াইনঘাট উপজেলায় বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ফারুক আহমদকে পরাজিত করে বিজয়ী হয়েছেন জেলা বিএনপির বহিস্কৃত (কোষাধ্যক্ষ) নেতা শাহ আল স্বপন।

ঘোড়া প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৪৫ হাজার ৬৭ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফারুক আহমদ মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ২৬ হাজার ৭৭০ ভোট।

গোয়াইনঘাট উপজেলায় ভোটার সংখ্যা ২ লক্ষ ২৯ হাজার ৯শ ২৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ১৮ হাজার ৬শ ৩৪ ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ১১ হাজার ২শ ৯৫ জন। এই উপজেলায় মোট ভোটকেন্দ্র ৮৪টি।

কোম্পানীগঞ্জ : কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মো. মজির উদ্দিন আনারস প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর প্রাপ্ত ভোট ২৮ হাজার ৭১৮। মজির উদ্দিনের নিকতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহমদ শামীম (মোটরসাইকেল প্রতীক) পেয়েছেন ২১ হাজার ৯১১ ভোট।

উল্লেখ্য, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় বর্তমানে ১ লক্ষ ১৯ হাজার ৯শ ৪২ জন ভোটার রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৬৩ হাজার ৭ম ৫৫ জন ও মহিলা ভোটার ৫৬ হাজার ১শ ৮১ জন। এই উপজেলায় মোট ভোট কেন্দ্রে ৪০টি।
উল্লেখ্য, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে সিলেট জেলার ৩টি উপজেলায় মঙ্গলবার ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে টানা ভোট গ্রহণ। দ্বিতীয় ধাপে সিলেটে কোম্পানীগঞ্জ, জৈন্তাপুর, গোয়াইনঘাট উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় গতকাল। এই তিন উপজেলায় মোট ৩৭ জন প্রার্থী ভোট যুদ্ধে ছিলেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৭ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

এছাড়া মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান শাহাজাহান খান দ্বিতীয় বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার নির্বাচনে কাপ পিরিচ প্রতীকে তিনি পেয়েছেন ৩৭ হাজার ৮শ' ১৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোটরসাইকেল প্রতীকের আওয়ামী লীগ নেতা রওনক আহমেদ অপু ১৯ হাজার ৫শ ৯৮ ভোট পেয়েছেন।

এদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন আব্দুল কাদির ফৌজি ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন সুমাইয়া সুমি। ৮টি ইউনিয়ন মোট ভোটার ১লক্ষ ৮৭হাজার ৫৫২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৯৬হাজার ১৪৯ জন এবং নারী ভোটার ৯১ হাজার ৪০৩ জন।

অপরদিকে, ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি রেজাউল করিম শামীম। এজেন্ট ফলাফল অনুযায়ী প্রায় ১৫ হাজার ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন তিনি।

প্রার্থীদের এজেন্ট ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার ৫২ টি কেন্দ্রের মধ্যে কেন্দ্রের মধ্যে মোটরসাইকেল প্রতীকে রেজাউল করিম শামীম পেয়েছেন পেয়েছেন ২৯ হাজার ১১১ ভোট। তার নিকট প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী উপজেলা বিএনপির (সদ্য বহিস্কৃত) সভাপতি নূরুল হক আফীন্দি আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ১৩ হাজার ৬৯৮ ভোট। এবং ঘোড়া প্রতীক নিয়ে ১৩ হাজার ৫৩১ ভোট পেয়ে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইকবাল আল আজাদ। ভাইস চেয়ারম্যান পদে আকবর হোসেন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মারজানা ইসলাম শিবনা বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন।

সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা, তাহিরপুর, বিশ্বম্ভরপুর ও জামালগঞ্জ. মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর; হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল ও নবীগঞ্জ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। আদালতের নির্দেশ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার নির্বাচন স্থগিত হয়ে যায়।



এসএ/সিলেট