ইরানে ৫ দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা

post-title

ফাইল ছবি

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দুল্লাহিয়ান নিহত হওয়ার ঘটনায় পাঁচ দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছে ইরান। সোমবার দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি এ ঘোষণা দেন।

ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় গতরোববার স্থানীয় সময় বিকেলে দুর্ঘটনায় বিধ্বস্ত হওয়া হেলিকপ্টারটি আজ সোমবার সকালে শনাক্ত করার পর এক সরকারি বিবৃতিতে আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি বলেন, ‘আমি আমার প্রিয় ইরানি জনগণের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে শহিদদের জন্য পাঁচদিনের সরকারি শোক ঘোষণা করছি।’

রোববার আজারবাইজানের সীমান্তের কাছে দুটি বাঁধ উদ্বোধন করেন প্রেসিডেন্ট রাইসি। এরপর হেলিকপ্টারে চড়ে ইরানের উত্তর-পশ্চিমের তাবরিজ শহরের দিকে যাচ্ছিলেন তিনি। তার সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ানসহ আরও বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা ছিলেন। তাবরিজ থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে তাদের বহনকারী হেলিকপ্টারটি। আজ সোমবার সকালে হেলিকপ্টারটির ৯ যাত্রীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে ইরানি রেড ক্রিসেন্ট।

প্রেসিডেন্ট রাইসির আকস্মিক মৃত্যুর ঘটনায় ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আলি খামেনি ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মোখবারকে অন্তবর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন। 

ইরানের সংবিধান বলছে, কোনো দুর্ঘটনায় যদি প্রেসিডেন্টের মৃত্যু হয় তাহলে সেই পদে বসবেন ভাইস প্রেসিডেন্ট। তবে এ ক্ষেত্রে অবশ্যই দেশটির সর্বোচ্চ নেতার অনুমতি লাগবে।

ইরানে রাষ্ট্রের প্রধান হিসেবে ভূমিকা পালন করেন সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি। তাকে সরকারের প্রধান এবং সর্বোচ্চ নেতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। প্রেসিডেন্ট মারা গেলে পরবর্তী ৫০ দিনের মধ্যে নির্বাচনের আয়োজন করার বিধান রয়েছে। এই সময়ের মধ্যে নতুন প্রেসিডেন্ট বেছে নিতে হবে।

এসএ/সিলেট