বিভাগীয় উদ্ভাবনী মেলার সমাপনী অনুষ্ঠান

নতুন প্রজন্ম উদ্ভাবন দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিবে: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী

post-title

ছবি সংগৃহীত

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, সরকারি প্রতিষ্ঠানের সেবাসমূহ উদ্ভাবনী মেলার মাধ্যমে মানুষের কাছে সহজে পৌঁছে দেওয়া যায়। এতে নতুন প্রজন্ম উৎসাহিত হয়ে নতুন নতুন উদ্ভাবন দিয়ে দেশকে আরো এগিয়ে নিতে পারবে।

বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় আয়োজিত সিলেটে জেলা স্টেডিয়ামের মোহাম্মদ আলী জিমনেসিয়ামে শুক্রবার (১০ মে) দুই দিনব্যাপী বিভাগীয় উদ্ভাবনী মেলা ২০২৪ এর পুরস্কার বিতরণী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য আমরা তথ্য-প্রযুক্তি ভিত্তিক  উন্নয়নশীল বাংলাদেশের নাগরিক। ২০৪১ সালের প্রধানমন্ত্রীর উন্নত ও সমৃদ্ধ  স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সরকারি কর্মকাণ্ডের প্রতিটি পর্যায়ে উদ্ভাবনী সংস্কৃতিকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। জনগণের দোরগোড়ায় দ্রুত ও সহজে সেবা প্রদানে কার্যকর উদ্যোগসমূহ তুলে ধরার জন্যই দুই দিনব্যাপী বিভাগীয় এ উদ্ভাবনী মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ আজকে তথ্যপ্রযুক্তির দিক দিয়ে অনেক বেশি এগিয়ে রয়েছে। তথ্যপ্রযুক্তিকে জনগণের আরো কাছে পৌঁছে দিতেই এমন আয়োজন করা হচ্ছে। এছাড়াও এসব মেলা তরুণদের উদ্ভাবনী শক্তি উপস্থাপনের অন্যতম প্লাটফর্ম।

বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকী, এনডিসি‘র সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) দেবজিৎ সিংহ। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি হুমায়ুন কবির, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) মু. মাসুদ রানা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মোবারক হোসেন, সিলেট মহানগর আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ই-গভর্নেন্স ও উদ্ভাবন কর্মপরিকল্পনা- ২০২৩-২৪ এর অংশ হিসেবে আয়োজিত মেলায় সিলেট বিভাগের ২৩টি সরকারি প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণে ২৬টি স্টল ছিল।
   


এসএ/সিলেট