নগরীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দগ্ধ ইভাকেও বাঁচানো গেল না

post-title

ফাইল ছবি

নগরীর মজুমদারী এলাকায় ফুফুর বাসায় বেড়াতে এসে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে দগ্ধ হওয়া আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁর নাম সাদিয়া জান্নাত ইভা (২৩)। 

এ নিয়ে ওই ঘটনায় দগ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দু'জনের মৃত্যু হলো। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট সিটি কর্পোরশেনর ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শেখ  তোফায়েল আহমদ সেপুল। তিনি জানান, রবিবার (৫ এপ্রিল) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সাদিয়া জান্নাত ইভা।

এর আগে  দগ্ধ হওয়া দুই বোনের মধ্যে সামিয়া রহমান (১৮) মারা যান যান। শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

সামিয়া রহমান (১৮) সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার বড়আইল গ্রামের আবদুল কুদ্দুসের মেয়ে। তার শরীরের ৯০ শতাংশ ঝলসে গিয়েছিল। দগ্ধ হওয়া তার ফুফাতো বোন সাদিয়া জান্নাত ইভা (২৩) চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি একই উপজেলার বালিঙ্গা গ্রামের সাহেল আহমদের মেয়ে। তারা দু’জনই কলেজছাত্রী।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) সন্ধ্যায় বাসার ছাদ থেকে কাপড় আনতে গিয়ে প্রথমে তারে জড়ান সামিয়া রহমান। মুহূর্তের মধ্যে তার শরীরে আগুন ধরে যায়। ওই সময় তাকে বাঁচাতে এগিয়ে ফুফাতো বোন ইভাও দগ্ধ হন। ঘটনার পর সামিয়াকে ওসমানী হাসপাতালে ও ইভাকে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করার পর রাতেই তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়। 

এসএ/সিলেট