জনগণের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে সরকার সর্বজনীন পেনশন স্ক্রীম চালু করেছে: অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

post-title

ছবি সংগৃহীত

জেলা তথ্য অফিস, সিলেট এর ব্যবস্থাপনায় সর্বজনীন পেনশন সংক্রান্ত আলোচনা ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

বুধবার (২৪ এপ্রিল) নগরীর একটি হোটেলের হলরুমে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) এর আওতায় সিলেট জেলা তথ্য অফিসের উপপরিচালক মো. সালাহ উদ্দিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) হোসাইন মো. আল-জুনায়েদ।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-আইডিয়া প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারী তামান্না আহমদ। বক্তারা সর্বজনীন পেনশন বিষয়ে নানাদিক তুলে ধরে বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) হোসাইন মো. আল-জুনায়েদ বলেন-জনগণের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে সরকার সর্বজনীন পেনশন স্ক্রীম চালু করেছে। বিশেষ করে বৃদ্ধ বয়সে যাদের পাশে দাঁড়ানোর মতো কোন লোকবল থাকেনা, তাদের জীবন জীবিকার অন্যতম একটি অনুসঙ্গ হতে পারে এই সর্বজনীন পেনশন। তাই সরকারের দেয়া এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে সকলের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল করতে সকলকে এখনই পেনশন স্কীমে অন্তর্ভূক্ত হওয়ার আহবান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে মূল বক্তব্য উপস্থাপনসহ সভাপতির বক্তব্যে জেলা তথ্য অফিস, সিলেট এর উপপরিচালক মো. সালাহ উদ্দিন বলেন-বয়স্ক পুরুষ ও মহিলাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য সকলকে এই পেনশন স্ক্রীমে অন্তর্ভূক্ত হওয়া জরুরি। কারণ সরকার এই সুযোগ করে দিয়েছেন সর্বস্তরের বয়স্ক মানুষদের সুরক্ষা বিবেচনায়।

তাই এই সুযোগকে কাজে লাগাতে সকলকে আহবান জানান তিনি। পাশাপাশি এই সকল বার্তা সর্বস্তরের জনতার নিকট পৌঁছানোর জন্য অনুরোধ জানান উপপরিচালক মো. সালাহ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে সাংবাদিক, এনজিওকর্মীসহ নানা শ্রেণীপেশার পুরুষ ও মহিলা অংশগ্রহণ করেন।

এসএ/সিলেট