বিশ্বের ১১টি দেশের ১৭ জন বিশেষজ্ঞ অংশ নিবেন

আন্তর্জাতিক সেমিনারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন সিলেটের সাদেক

post-title

মোহাম্মদ আবু সাদেক

দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলে ডিজিটাল রূপান্তর, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, রোবোটিকস বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনারে বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধিত্ব করছেন জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের উপপরিচালক, সিলেটের মোহাম্মদ আবু সাদেক।

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, উদ্ভাবন নীতি, রোবোটিকস, ডিজিটাল রূপান্তর, চিকিৎসায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, ক্লাউড কম্পিউটিং, কোরিয়ান অভিজ্ঞতা ও অবকাঠামোসহ নানা বিষয়ে বিশ্বের ১১টি দেশের ১৭ জন বিশেষজ্ঞ এ সেমিনারে অংশ নিবেন। ২৪ এপ্রিল, মঙ্গলবার এ সেমিনার শুরু হবে। এরই মধ্যে তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছেন।

কোরিয়া বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় আইটি প্রমোটিং এজেন্সি (এনআইপিএ) এর আমন্ত্রণে ও অর্থায়নে দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

প্রসঙ্গত, আবু সাদেকের একান্ত উদ্যোগে ২০২২ সালের সিলেটের মহাদূর্যোগের প্রেক্ষিতে, বন্যা প্রস্তুতি গ্রহণে গণমাধ্যমের ভূমিকা শীর্ষক গবেষণা রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। সিলেটের কৃতি সন্তান আবু সাদেক নিরাপদ সড়ক, স্যোশাল মিডিয়ার প্রভাব, জনকল্যাণে গণমাধ্যম ইত্যাদি বিষয়ে সাংবাদিকদের সচেতনতা বৃদ্ধি ও করণীয় বিষয়ে নিয়মিত প্রশিক্ষণ, গবেষণা ও অনুষ্ঠান আয়োজন করে আসছেন।

ইতোপূর্বে তিনি মালয়েশিয়ার এআইবিডি কর্তৃক গঠিত এইচসিএম টাস্কফোর্সে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। টাস্কফোর্সে ভারত, ভুটান, মালয়েশিয়া, কোরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, নাইজেরিয়া, আমেরিকা ও ফিজির ১২জন সদস্য ছিলেন। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, ইউরোপীয়ান ইউনিয়ন ও ব্রিটিশ কাউন্সিলের আয়োজনে প্লাটফর্ম ফর ডায়লগ (P4D) প্রকল্পের আওতায় নেদারল্যান্ডস সফর করেন। এছাড়া পেশাগত কাজে ফ্রান্স, ভিয়েতনাম, ভারত ও মালয়েশিয়ায় সফর করেছেন।

আবু সাদেক একসময় কানাইঘাট কলেজ ও সিলেটের নয়াসড়কস্থ খাজাঞ্জিবাড়ী ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষক ছিলেন। এছাড়া তিনি শীর্ষস্থানীয় সফটওয়্যার নিমার্তা প্রতিষ্ঠান টেকনোভিস্তা লিমিটেডে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি স্নাতকোত্তর পর্যায়ে প্রথম শ্রেণীতে ৬ষ্ঠ স্থান লাভ করেন।

বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকারী মোহাম্মদ আবু সাদেকের স্থায়ী নিবাস সিলেট জেলার কানাইঘাট থানার সাতবাক ইউনিয়নের জুলাই গ্রামে। তিনি এমসি কলেজের প্রাক্তন শিক্ষক (১৯৭০-১৯৮৩) মরহুম মোহাম্মদ আবু সালেহ ও শাহিদা বেগম চৌধুরীর পুত্র। তিনি কানাইঘাট হাইস্কুলের দীর্ঘদিনের কর্ণধার (১৯৪৩-১৯৭১) প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ মরহুম ‘হেডমাস্টার মৌলভী ইব্রাহিম আলী’ এর নাতি ও সমাজসেবক মরহুম তফজ্জুল আলী চৌধুরীর দৌহিত্র।

SI/01/200424