সিলেট প্রেসক্লাবের সহ-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলেন শুয়াইব

post-title

ছবি সংগৃহিত

সাংবাদিকতার শতবছরের স্মারক প্রতিষ্ঠান সিলেট প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে (২০২৪-২৫) সহ-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন সিলেটের প্রাচীনতম সংবাদপত্র দৈনিক সিলেট বাণীর প্রধান প্রতিবেদক শুয়াইবুল ইসলাম। গত ১৮ এপ্রিল আনন্দঘন পরিবেশে ভোটের মাধ্যমে তিনি এ পদে নির্বাচিত হন।

তিনি এ পদে ৩৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ভোরের কাগজের খালেদ আহমদ। একই পদে চার জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। অপর দুই প্রার্থী দৈনিক ইনকিলাবের সিলেট ব্যুরো প্রধান ফয়সল আমীন ১৭ ভোট ও সময় টেলিভিশনের স্টাফ ক্যামেরাপার্সন দিগেন সিংহ ১৪ ভোট পেয়েছেন।

প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এ নির্বাচনে শুয়াইবুল ইসলাম নির্বাচিত হওয়ায় সম্পাদক ওবায়দুল হক চৌধুরীসহ দৈনিক সিলেট বাণী পরিবার তাকে অভিনন্দন জানিয়েছে।

শুয়াইবুল ইসলাম সিলেট বাণী ছাড়াও রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) সিলেট প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে কাজ করেছেন।

আগামী ২০২৫ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত দুই বছর মেয়াদে প্রেসক্লাবের দায়িত্ব পালনে তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করেছেন।

প্রসঙ্গত, ১৮ এপ্রিল নির্বাচনে সভাপতি পদে সময় টেলিভিশনের সিলেট ব্যুরো চিফ ইকরামুল কবির সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েন সিলেটের ডাকের চিফ রিপোর্টার মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম।
বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) নগরের সুবিদবাজারস্থ প্রেসক্লাবের নিজস্ব ভবনে দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা শেষে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। বিকেল তিনটা থেকে পাঁচটা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ শেষে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।
ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার অ্যাডভোকেট এমাদউল্লাহ শহীদুল ইসলাম শাহীন।
ঘোষিত ফলাফলে ৫৫ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হন সময় টেলিভিশনের সিলেট ব্যুরো প্রধান ইকরামুল কবির। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইত্তেফাক-এর সিলেট ব্যুরো প্রধান হুমায়ুন রশিদ চৌধুরী পান ৩৪ ভোট। আবদুল কাদির তফাদার পান ৭ ভোট।
সাধারণ সম্পাদক পদে ৫০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হছেন সিলেটের ডাক-এর প্রধান প্রতিবেদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. আফতাব উদ্দিন পান ৩৫। প্রভাতবেলার সম্পাদক কবীর আহমদ সোহেল পান ১০ ভোট।
কোষাধ্যক্ষ পদে ৪ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন এনটিভির আনিস রহমান। তিনি পান ৫০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সিলেটের ডাকের স্টাফ রিপোর্টার নূর আহমদ পান ৪৬ ভোট।
সহসভাপতি পদে সর্বোচ্চ ৫৭ ভোট পেয়ে সিনিয়র সহসভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন খালেদ আহমদ। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫২ ভোট পেয়ে সহসভাপতি হয়েছেন বাপ্পা ঘোষ চৌধুরী। এ পদে ৩০ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন মো. ফয়ছল আলম।
ক্রীড়া সম্পাদক পদে ৬১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন শেখ আব্দুল মজিদ। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এটিএম তুরাব পেয়েছেন ৩৬ ভোট।
মাত্র ১ ভোট ব্যবধানে পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে বিজয়ী হয়েছেন কবির আহমদ। তিনি পেয়েছেন ৪৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মো. মুহিবুর রহমান পেয়েছেন ৪৭ ভোট।
এছাড়াও সদস্য পদে সর্বোচ্চ ৬৩ ভোট পেয়ে প্রথম সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন সিলেট মিরর-এর আলোকচিত্রি শেখ আশরাফুল আলম নাসির। এছাড়া যথাক্রমে ৫৩ ভোট পেয়ে আব্দুর রাজ্জাক দ্বিতীয় ও ৪৯ ভোট পেয়ে সুনীল সিংহ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

এসএ/সিলেট