বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে মহাসড়ক অবরোধ শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের

post-title

ছবি সংগৃহীত

সরকারি চাকরির সকল গ্রেডে কোটা সংস্কারের দাবিতে ১ দফা দাবি নিয়ে আবারো চতুর্থ দিনের মত অবস্থান কর্মসূচি ও বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে রেখেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কোটাবিরোধী আন্দোলনরত  শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (৮ জুলাই) সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্বর থেকে মিছিল বের করে দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে প্রচন্ড বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত মুল ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে সিলেট-সুনামগঞ্জের রাস্তা বাঁশ দিয়ে অবরোধ করে রাখে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা এতে তীব্র ভোগান্তির শিকার হয় যাত্রীরা।

এসময় শিক্ষার্থীরা নিজেদের  এক দফা দাবি উত্থাপন করে বলেন, সকল গ্রেডে সব ধরনের অযৌক্তিক ও বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করে সংবিধানে  উল্লিখিত অনগ্রসর গোষ্ঠীর জন্য কোটাকে ন্যূনতম পর্যায়ে এনে সংসদে আইন পাস করে কোটা পদ্ধতিকে সংশোধন করতে হবে। তারা আরো বলেন, সরকারী চাকুরিসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তির ক্ষেত্রে সকল ধরণের বৈষম্যমূলক কোটা বাতিল করতে হবে এবং শুধুমাত্র অনগ্রসর গোষ্ঠীর কথা মাথায় রেখে স্বল্প কিছু কোটা রেখে সংসদে আইন করে এই কোটা বৈষম্যের ইতি টানতে হবে।

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত রাজপথে কঠোর আন্দোলন  চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণাও দেন তারা।

ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী শাকিল আহমেদ বলেন, আজকে যে আদালতের রায় দিয়েছে সেটির মাধ্যমে আমাদেরকে একটা সান্তনা দেওয়ার চেষ্টা করেছে কিন্তু আমরা কোনো সান্তনা চাই না, আমরা চাই স্থায়ী সমাধান। আর আমাদের দাবি একটাই সারাদেশের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের জন্য নূন্যতম একটা কোটা রেখে বাকি বৈষম্যমুলক কোটা দ্রুত অপসারণ করে সংসদে আইন পাশ করতে হবে না হয় আমাদের আন্দোলন চলছে এবং চলবে।


এসএ/সিলেট