দোয়ারায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১

post-title

ছবি সংগৃহীত

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে ১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত তোফাজ্জল হোসেনকে (২২) গ্রেফতার করেছে দোয়ারাবাজার থানা পুলিশ।

শুক্রবার (৫ জুলাই) গভীর রাতে উপজেলার লক্ষীপুর থেকে  তাকে গ্রেফতার করা হয়। তোফাজ্জল হোসেন  লক্ষীপুর গ্রামের নজর আলীর ছেলে।

পারিবারিক ও মামলা সূত্রে জানা যায়,  বুধবার (৩ জুলাই)  দুপুর ১২টায় ধর্ষণের শিকার শিশুটির মা তার মেয়ের বাড়িতে ও  বাবা কৃষি কাজে ব্যস্ত ছিলেন।

এ সময় ঘরের মধ্যে শিশুটি একাই ছিল। এই সুযোগে তোফাজ্জল হোসেন জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করে। পরে ধর্ষিতা শিশু তোফাজ্জলের হাত থেকে ছুটে দৌঁড়ে প্রতিবেশীর ঘরে আশ্রয় নেয়। অনেকে মামলা করতে বাধা দিয়ে শালিস বৈঠকের মাধ্যমে বিষয়টি সমাধানের নামে কালক্ষেপণ করে

পরবর্তীতে বাধ্য হয়েই শিশুটির বাবা শুক্রবার (৫ জুলাই) রাতে থানায় এসে ধর্ষণের অভিযোগে তোফাজ্জলকে আসামী করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে শুক্রবার  গভীর রাতে অভিযুক্ত তোফাজ্জলকে আটক করে পুলিশ। ধর্ষণের শিকার শিশু সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। 

শিশুটির বাবা  জানান, লম্পট তোফাজ্জল  আমার মেয়ের কাছে সিগারেট জ্বালানোর জন্য আগুন চায়। সেখানে খালিঘর পেয়ে তাকে ধর্ষণ করে। এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানিয়ে দোয়াবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে অভিযুক্ত তোফাজ্জলকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে দোয়ারাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ  (ওসি) বদরুল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মামলার তিন ঘন্টার মধ্যেই  প্রযুক্তি ব্যবহার করে ধর্ষণ মামলার আসামি তোফাজ্জল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে আদালতে সপোর্দ করা হয়েছে।  

এসএ/সিলেট